ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য ল্যাপটপ ভালো হবে নাকি ডেক্সটপ

ফ্রিল্যান্সিং এর কাজের জন্য ল্যাপটপ নাকি ডেস্কটপ কিনব

ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ গুলো করার জন্য ইচ্ছা পোষণ করলে এই প্রশ্নটি সচরাচর সবার মনে জাগে। সেটি হচ্ছে  ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য ল্যাপটপ কিনব নাকি ডেস্কটপ কিনব? এক কথায় এই প্রশ্নটির উত্তর দেওয়া সম্ভব নয়।  কারণ কম্পিউটারের কনফিগারেশন নির্ভর করবে আপনি কি ধরনের কাজ করবেন  তার উপর। 

কেমন কম্পিউটার লাগবে ফ্রিল্যান্সিং করতে?

ফ্রিল্যান্সিং একক কোন একটি বিষয় নয় এখানে বিভিন্ন ধরনের সেক্টর রয়েছে। আমি ইতোমধ্যে বেশ কিছু সেক্টর নিয়ে আলোচনা করেছি। একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনারের জন্য যে কনফিগারেশনের কম্পিউটার দরকার হবে, একজন ওয়েব ডেভেলপার এর জন্য সেই কনফিগারেশন এর প্রয়োজন হবে না। আবার একজন ওয়েব ডেভেলপারের যে কনফিগারেশনের কম্পিউটার দরকার হবে একজন   আর্টিকেল রাইটার এর সেই কনফিগারেশনের দরকার হবে না। এভাবে প্রতিটি সেক্টরের কাজগুলো করার জন্য ভিন্ন ভিন্ন  ন্যূনতম কনফিগারেশনের কম্পিউটার দরকার হবে।

 ডিজিটাল মার্কেটিং এর জন্য কম্পিউটার সেটআপ

একজন এসইও এক্সপার্ট এর অনেকগুলো ওয়েবসাইট ভিজিট করতে হবে,  একটি  ব্রাউজারে অনেকগুলো ট্যাব নিয়ে কাজ করতে হবে, মাল্টিটাস্কিং করতে হবে।  সে ক্ষেত্রে কম্পিউটারে RAM  এর বেশি প্রয়োজন হবে। পাশাপাশি একটি এসএসডি থাকতে হবে যেন দ্রুত সবকিছু অ্যাক্সেস করা যায়।

এধরনের মাল্টিটাস্কিং সম্পর্কিত কাজগুলো যারা করবেন  তারা কম্পিউটার কনফিগারেশনে RAM  এবং এসএসডির কথাটি বিশেষভাবে মাথায় রাখবেন। এক্ষেত্রে ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকার মাঝে একটি কম্পিউটার সেটআপ হলেই  ডিজিটাল মার্কেটিং এর জন্য যথেষ্ট।

গ্রাফিক্স ডিজাইন এর জন্য কম্পিউটার সেটআপ

গ্রাফিক্স ডিজাইন করে ফ্রিল্যান্সিং করতে হলে আপনাকে অবশ্যই ভালো মানের একটি কম্পিউটার সেটআপ থাকতে হবে,  কেননা এখানে এডোবি ফটোশপ এবং এডোবি ইলাস্ট্রেটর মত ভারে ভারি সফটওয়্যার ইউজ করতে হবে যা সাধারণ কম্পিউটার দিয়ে সম্ভব না। সে ক্ষেত্রে ডিজাইনিং রিলেটেড কাজ করতে চাইলে এক্সট্রা গ্রাফিক্স কার্ড কম্পিউটারে থাকতে হবে। পাশাপাশি ভালো মানের প্রসেসর ব্যবহার করতে হবে। 

মনিটর কেনার সময় চেষ্টা করবেন কমপক্ষে  ২১  ইঞ্চি সাইজের মনিটর কিনতে এবং সেখানে যেন ১৯২০ x ১০৮০ অর্থাৎ এইচডি রেজুলেশন থাকে। আপনার বাজেটের মধ্যে  যে কোন ব্র্যান্ডের মনিটরই নিতে পারেন ।   গ্রাফিক্স ডিজাইন এর জন্য কম্পিউটার সেটআপ করতে হলে আপনার বাজেট ৫০০০০ থেকে ৬০ হাজার থাকতে হবে। 

ওয়েব ডিজাইন এর জন্য কম্পিউটার সেটআপ

ডিজিটাল মার্কেটিং এর মত কম্পিউটার সেটআপ হলেই আপনি ওয়েব ডিজাইন করতে পারবেন। এই সেক্টরে ভারী কোন সফটওয়্যার ইউজ হয় না বিধায় খুব সহজেই সাধারণ কম্পিউটার দিয়ে কম্পিউটার কোডিং করতে পারবেন।  তবে কম্পিউটারের সাথে একটি ভাল মানের এসএসডি যুক্ত হলে আপনার কাজের গতিকে আরও বৃদ্ধি করবে। এবং ২১ ইঞ্চি ভালো মানের একটি মনিটর হলে ওয়েব ডিজাইন করতে আপনার সুবিধা হবে। 

ওয়েব ডিজাইনের জন্য ২৫ থেকে ৩৫ হাজার টাকা দামের একটি কম্পিউটার সেটআপ হলে আপনি কাজ শুরু করতে পারবেন।

বেসিক কম্পিউটার শেখার জন্য কম্পিউটার সেটআপ 

তবে যারা প্রাথমিকভাবে কাজ শেখার জন্য কম্পিউটার কিনবেন তারা নিজেদের বাজেটের মধ্যে সেরা কনফিগারেশনটিই কেনার চেষ্টা করবেন। কাজ শিখে পরবর্তীতে নিজের টাকায় অনেক দামি কম্পিউটারও কেনা যাবে। এক্ষেত্রে ১৫ থেকে ২৫ হাজার টাকা দামের একটি কম্পিউটার সেটআপ হলে আপনি কাজ শুরু করতে পারবেন।

আপনি যদি মেসে থাকা অবস্থায় কাজ শিখেন তাহলে ল্যাপটপের তুলনায় ডেক্সটপ আপনার জন্য নিরাপদ হবে।

শুরুতেই দামী কম্পিউটার কেনার জন্য বাবা মাকে চাপ দেওয়ার কোন প্রয়োজন নেই। বাস্তব জীবনে আমি অনেককেই দেখেছি যারা বাড়িতে চাপ দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং এর কথা বলে দামী কম্পিউটার কিনে নিয়ে পরবর্তীতে আর ফ্রিলান্সিং পেশায় সফল হয়ে আসতে পারেনি।   তাই সকলের প্রতি পরামর্শ থাকবে বাবা মায়ের উপর জুলুম না করে তাদের সাধ্যমতো যে কম্পিউটারটি কিনে দিতে পারবে সেরকম কম্পিউটার কিনে কাজ শেখা শুরু করা।  পরবর্তীতে ইনশাআল্লাহ আপনি নিজের টাকায় অনেক দামী কম্পিউটার কিনতে পারবেন।

ল্যাপটপ নাকি ডেক্সটপ কোনটি আমার জন্য ভালো হবে?

কম্পিউটার কেনার কথা মাথায় আসলেই একটা বিষয়ে আমাদেরকে দ্বিধার মধ্যে  ফেলে  দেয় সেটি হচ্ছে ল্যাপটপ নাকি ডেস্কটপ কোনটি নেব ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য। উভয় প্রকার কম্পিউটারেরই আলাদা আলাদা কিছু সুবিধা এবং অসুবিধা রয়েছে। 

ল্যাপটপ ভালো হবে নাকি ডেক্সটপ ফ্রিল্যান্সিং এর জন্য

প্রথমেই যে বিষয়টি বিবেচনা করতে হবে যে আপনি কোন কাজে কম্পিউটারটি ব্যবহার করবেন এবং আপনার বাজেট কেমন। ল্যাপটপ কিনলে যে সুবিধাটি পাওয়া যায় সেটি হচ্ছে যে কোন জায়গায় এটি  বহনযোগ্য। অর্থাৎ আপনি সব জায়গা থেকেই আপনার কাজ করতে পারছেন একটি ল্যাপটপ থাকলে।

যদিও ভারী কাজগুলো করাটা সহজ হবে না কম বাজেটের ল্যাপটপে। আপনি যদি বেশি পাওয়ারফুল ল্যাপটপ নিতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে টাকাও অনেক বেশি খরচ করতে হবে। ফ্রিল্যান্সিং এর কাজের জন্য ডেক্সটপ নেওয়াটাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ। এক্ষেত্রে বর্তমান বাজারে  ৩০/ ৪০  হাজার টাকার মধ্যে আপনি যে মানের ল্যাপটপ পাবেন, সেই টাকা দিয়ে এর চাইতে অনেক ভাল মানের একটি ডেক্সটপ কম্পিউটার তৈরি করা সম্ভব।  

সব ধরনের ফ্রিল্যান্সিং কাজের জন্য উপযুক্ত  কম্পিউটার

ফ্রিল্যান্সিং এর সকল ক্যাটাগরির কাজের ওপর বিবেচনা করে আমরা একটি ভালো মানের কম্পিউটার কনফিগারেশন তৈরি করেছি।  যা দিয়ে আপনি কম্পিউটার সেটআপ করলে সকল ধরনের ফ্রিল্যান্সিং কাজ ভালোভাবে করতে পারবেন।  এটি ২০২৩ সালের জুন মাসের কম্পিউটার পার্টস এর বাজার মূল্যের উপর ভিত্তি করে।

ComponentProduct NamePrice
CPUIntel 11th Gen Core i5-11400F Rocket Lake Processor14,500tk
CPU CoolerDeepcool UD551 ARGB CPU Air Cooler1,500tk
MotherboardAsus PRIME H510M-E-SI DDR4 Micro ATX Motherboard9,300tk
RAMKingston FURY Beast RGB 8GB 3200MHz DDR4 Desktop RAM2,999tk
StorageAddlink S20 256GB 2.5″ SATA III 6Gb/s 3D Nand SSD2,500tk
Graphics CardASUS GeForce GT 1030 2GB GDDR5 Profile Graphics Card9,900tk
Power SupplyGamdias Kratos E1-500 500 Watt RGB Power Supply3,550tk
CasingMaxGreen 5902 Blue ATX Casing2,900tk
Casing CoolerDeepCool TF120S 120mm High-Performance Case Fan750tk
MonitorXiaomi Redmi A24 23.8 Inches VA FHD 75Hz Monitor11,999tk
KeyboardLogitech K120 Usb Keyboard With Bangla Black (920-008363)725tk
MouseAstrum MU100 Wired Optical USB Mouse350tk
Total=60,973tk
Best Computer Setup for Freelancing

শেষ কথাঃ

সবদিক বিবেচনায় আমি সবাইকে সবসময় পরামর্শ দেই ডেক্সটপ কম্পিউটার কিনতে।  যা আপনাকে স্বাচ্ছন্দ্যময় ভাবে কাজ করতে সহযোগিতা করবে। তবে বিষয়টি একান্তই আপনার নিজস্ব ব্যক্তিগত ব্যাপার।  ফ্রিল্যান্সিং এর কাজের জন্য আলাদাভাবে ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ কোনটি প্রয়োজন সেটি নিয়ে ভাবার প্রয়োজন নেই।  আপনার যেটি ভালো লাগে  সেটিই ব্যবহার করবেন। তাছাড়া ফ্রিল্যান্সিং সম্পকে জানতে আমাদের ফ্রিল্যান্সিং কি? নতুনদের ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার গাইডলাইন এই পোস্টটি পরতে পারেন।

Leave a Reply

Index